ঢাকা মঙ্গলবার, মে ২৮, ২০২৪
প্রযুক্তিকে সাথে নিয়েই ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশের দিকে আমরা এগিয়ে যাবো----পুলিশ সুপার
  • মীর সামসুজ্জামান
  • ২০২৪-০৫-১৪ ০৫:১০:৩৩

 রাজবাড়ী জেলা পুলিশের আয়োজনে গতকাল ১৩ই মে সকাল ১১টায় রাজবাড়ী সরকারী আদর্শ মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ, সাইবার অপরাধ ও মাদক বিরোধী সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

 কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর একেএম ইকরামুল করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার জি.এম আবুল কালাম আজাদ, পিপিএম(সেবা) বক্তব্য রাখেন। 

 কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মোঃ মাসুদুজ্জামান’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে সচেতনতা মূলক বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(ক্রাইম এন্ড অপস্) মুকিত সরকার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আহসান হাবীব হাসু।

 অনুষ্ঠানের শুরুতে কলেজের শিক্ষকের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার সহ জেলা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

 এছাড়াও ইভটিজিং, বাল্য বিবাহ, সাইবার অপরাধ ও মাদক বিরোধী শীর্ষক সচেতনতামূলক সভায় উপস্থিত ছাত্রীদের মাঝে সাইবার নিরাপত্তা সংক্রান্ত জেলা পুলিশের লিফলেট বিতরণ করা হয়। পরে ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ ও সাইবার অপরাধ বিষয়ক একটি প্রেজেন্টেশন শিক্ষার্থীদের সামনে উপস্থাপন করা হয়। প্রেজেন্টেশন টি উপস্থাপন করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(ক্রাইম এন্ড অপস্) মুকিত সরকার।

 তিনি শিক্ষার্থীদের সাইবার অপরাধ সম্পর্কে ধারণা দেন এবং কিভাবে সাইবার অপরাধ থেকে বাঁচা যায় ও কিভাবে সমাজ থেকে সাইবার অপরাধ কমানো যায় সে বিষয়ে ব্রিফিং দেন। এছাড়াও ফেসবুক ব্যবহার, অনলাইন প্রতারণা, বিকাশ প্রতারণা থেকে কিভাবে নিজেদেরকে বিরত রাখা যায় সেই বিষয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন। 

 এছাড়াও ফেসবুক একাউন্টের নিরাপত্তা বিধানে করণীয় ও ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক হলে করণীয় সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের সচেতন করেন।

 তিনি সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ে সাইবার বুলিং, ফেসবুক/ইমেইল হ্যাকিং, ফিশিং, স্পুফিং, বিকাশ, নগদ ও অন্যান্য এ্যাপস এর মাধ্যমে প্রতারনা করে টাকা নিয়ে যাওয়া, ইভটিজিং প্রতিরোধ, বাল্য বিবাহ রোধসহ মাদক বিরোধী আলোচনা করেন।

 প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার জি.এম.আবুল কালাম আজাদ বলেন, প্রযুক্তিকে পিছনে ফেলে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব না। প্রযুক্তিকে সাথে নিয়েই আমরা ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। প্রযুক্তির এই যুগে আমাদের সন্তানরা যাতে নিরাপদ থাকে এবং আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম, আমাদের ছাত্র ছাত্রীরা তাদের প্রযুক্তি কেন্দ্রীক যাত্রাটা নিরাপদ থাকে সেটির প্রয়াস হচ্ছে আজকের এই সচেতনতা মূলক সভা। আমাদের ইচ্ছা আছে এই সচেতনতামূলক প্রোগ্রামটা জেলার প্রতিটি স্কুলে স্কুলে করা। তবে সেটি সম্ভব না হলেও আমরা উপজেলার প্রতিটি বড় বড় স্কুলে করা। আমরা সচেতনতা মূলক প্রোগ্রামটা করে দেখেছি যে শিক্ষার্থীদের আগ্রহ রয়েছে, তারা এই বিষয় গুলো সম্পর্কে জানতে চাই এবং তারা নিরাপদ থাকতে চাই। আমাদের এই অগ্রযাত্রা অব্যহত থাকবে।

 সভাপতির বক্তব্যে রাজবাড়ী আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এমকেএম ইকরামুল করিম বলেন, জেলা পুলিশের আজকের এই আয়োজনটি চমৎকার ছিলো। সাইবার অপরাধ সম্পর্কে প্রত্যেকটি বিষয় শিক্ষার্থীদের সামনে চমৎকার ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। জেলা পুলিশ শিক্ষার্থীদের সচেতন করেছে। জেলা পুলিশের এই আয়োজনকে আমি সাধুবাদ জানায়। 

 এ সময় কলেজের উপাধ্যক্ষ আবু জিহাদ আনছারী, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহকারী অধ্যাপক এস.এম সামসুজ্জামান, আইসিটি শিক্ষক তুষার আজম, রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ ইফতেখারুল আলম প্রধান, গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ মনিরুজ্জামান খান, সদর থানার পরিদর্শক(তদন্ত) মোঃ এসরাকুলসহ জেলা পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তা, কলেজের অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ ও দুই শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

রাজবাড়ীতে জেলা অবহিতকরণ ও কর্ম-পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত
রাজবাড়ীতে ৯২টি হারানো ফোন  ফিরে পেল প্রকৃত মালিককেরা
রাজবাড়ীতে জেলা আদালত সহায়তা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত
সর্বশেষ সংবাদ