ঢাকা মঙ্গলবার, মার্চ ৫, ২০২৪
রাজবাড়ীতে নারী সাইক্লিস্টদের বাল্যবিয়ে বিরোধী সাইকেল র‍্যালি
  • মীর সামসুজ্জামান
  • ২০২৩-১২-০২ ১৪:৩৮:০২

‘আমার জীবন আমার অধিকার,বাল্যবিয়ে রুখবো এবার’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গতকাল ২রা ডিসেম্বর সকালে রাজবাড়ীতে নারী সাইক্লিস্টদের অংশগ্রহণে বাল্যবিয়ে ও আত্মহত্যা বিরোধী সাইকেল র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 রাজবাড়ী জেলা পুলিশের আয়োজনে প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থার সহযোগিতায় পুলিশ সুপার কার্যালয় চত্ত্বরে সাইকেল র‌্যালির উদ্বোধন করেন জেলা পুলিশ সুপার জি এম আবুল কালাম আজাদ।

 নারী সাইক্লিস্টরা রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার কার্যালয় চত্ত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালিটি শহরের পান্না চত্ত্বর মোড়, বকুলতলা মোড়সহ প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। 

 সাইকেল র‌্যালিতে রাজবাড়ী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, শেরে বাংলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, অংকুর স্কুল এন্ড কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অনলাইন প্লাটফর্মের শতাধিক নারী সাইক্লিস্ট অংশগ্রহণ করে। এছাড়াও পায়ে হেঁটে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দুই শতাধিক নারী শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। 

 সাইকেল র‌্যালিতে অংশ নেওয়া স্কুল ছাত্রী রোকসানা বলেন, আজকের এই সাইকেল র‌্যালির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে পরিবারের বড়দেরকে ও মেয়েদেরকে সচেতন করা। যেনো পরিবারের প্রত্যেক মেয়েদেরকে ১৮ বছরের আগে বিয়ে দেওয়া না হয়। ১৮ বছরের আগে তাদের বিয়ে দিলে মেয়েরা যেনো রুখে দাঁড়ায়। আজকের এই সাইকেল র‌্যালির মাধ্যমে আমাদের ম্যাসেজ এটাই যে ১৮ বছরের আগে কোন কন্যা সন্তানকে যেনো তাদের পরিবার বিয়ে না দেই। আজকের এই ব্যতিক্রম ধর্মী সাইকেল র‌্যালীর আয়োজক রাজবাড়ী জেলা পুলিশকে ধন্যবাদ জানায়।

 র‌্যালিতে আসা একাধিক স্কুল ছাত্রীরা বলেন, বর্তমান সমাজে বাল্য বিবাহ ও আত্মহত্যার প্রবণতা অনেক বেশি বেড়ে গেছে। আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ বাল্য বিবাহ। তাই আমাদের সকলের পরিবারের উচিত বাল্য বিবাহ না দেওয়া। আজকের এই র‌্যালির মাধ্যমে আমরা বাল্য বিবাহের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবো। যাতে অল্প বয়সে আর কোন মেয়ের জীবন নষ্ট না হয়।

 উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি রাজবাড়ীর জেলা পুলিশ সুপার জি এম আবুল কালাম আজাদ বলেন, সাইকেল লাভার রাজবাড়ী ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থা সমাজে মাদক বিরোধী কর্মকান্ড ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে, আত্মহত্যা রোধে কাজ করে থাকে। যেহেতু মাদক ও আত্মহত্যার সাথে পুলিশের সংযোগ রয়েছে তাই আমরা জেলা পুলিশ তাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছি। যেহেতু বাংলাদেশে আত্মহত্যার প্রবণতা আগের থেকে অনেকটা বেড়েছে তাই আমরা যদি সমাজের মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে পারি তাহলে আত্মহত্যার প্রবণতা কমানো সম্ভব। এছাড়াও সমাজ থেকে মাদক নির্মূল করা সম্ভব। আমরা এ ধরনের ভালো উদ্যোগের সাথে জেলা পুলিশ সবসময় পাশে থাকবো।

 এ সময় রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন ও অর্থ) মোঃ রেজাউল করিম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) মোঃ ইফতেখারুজ্জামান, ডিআইও-১ বিপ্লব দত্ত চৌধুরী, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ ইফতেখারুল আলম প্রধান, জেলা গোয়েন্দা শাখার(ডিবি’র) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ মনিরুজ্জামান, কসবা মাজাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহরিয়ার সুফল মাহমুদ, প্রান্তিক জনকল্যাণ সংস্থার উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য শাহ এনামুল কবির, সাইকেল লাভার রাজবাড়ী গ্রুপের প্রতিনিধি ও জেলা পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 রাজবাড়ী সদর উপজেলার নতুন ইউএনও রবিউল আলমের দায়িত্ব গ্রহণ
কালুখালীর লাড়িবাড়ীতে দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত মঙ্গল বিশ্বাস মৃত্যু
রাজবাড়ীতে দৈনিক সময়ের আলোর ৫ম বর্ষপূর্তি পালন
সর্বশেষ সংবাদ