ঢাকা বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
পুণ্য লাভের আশায় রাজবাড়ীর পদ্মা নদীতে গঙ্গাস্নান অনুষ্ঠিত
  • সুজন বিষ্ণু
  • ২০২৪-০২-২৪ ১৪:৩৬:৪৯

 মাঘী পূর্ণিমা তিথি উপলক্ষে রাজবাড়ী সদর উপজেলায় গোদার বাজার এলাকায় পদ্মা নদীতে গতকাল ২৪শে ফেব্রুয়ারী সনাতন ধর্মাবলম্বীদের গঙ্গা পূজা ও স্নান উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

 দূর দুরান্ত থেকে আসা হাজার হাজার সনাতন ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষ, তরুণ-তরুণী পুণ্য লাভের আশায় ফুল, ফল, বেলপাতা, কলাপাতা ইত্যাদি দিয়ে গঙ্গা দেবীর আরাধনা করেন। পরে তারা পুরোহিতদের চাল, ডাল টাকা পয়সা দান করে আর্শিবাদ কামনা করেন। এছাড়া অসহায় মানুষের মাঝেও চাল, ডাল টাকা পয়সা দান করে তারা। পাপমুক্ত হতে যুগ যুগ ধরে প্রতি বছর গঙ্গাস্নান অনুষ্ঠিত হয়।

 সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত গোদার বাজারে এই স্নান উৎসব হয়। সেখানে দেখা গেছে কেউ গীতা পাঠ করছেন- কেহ নাম জপ করছেন। পাপমুক্ত হতে যুগ যুগ ধরে প্রতি বছর মাঘী পূর্ণিমা তিথিতে রাজবাড়ীতে এই স্নান উৎসব হয় বলে জানা গেছে।

 স্নান করতে আসা অধরা রাণী বলেন, আমরা প্রতি বছরই পরিবারের সবাই মাঘী পূর্ণিমা তিথিতে পদ্মা নদীতে গঙ্গাস্নান করতে আসি। গঙ্গাস্নান করলে পাপ ধুয়ে মুছে যায়, মন পবিত্র হয়, রোগমুক্তি হয়। এজন্য গঙ্গাস্নান করতে এসেছি। বিশ্বাসেই ভক্তি মেলে। এই গঙ্গাস্নানের দিন থেকে প্রতিবছর রাজবাড়ী লক্ষ্মীকোল হরিসভা মন্দিরে মহানাম যজ্ঞনুষ্ঠান শুরু হয়। 

 লোকনাথ মন্দিরের মহারাজ স্বপন বলেন, সত্য যুগ থেকে শুরু হওয়া এই ধর্মীয় উৎসব আজও পালন করে আসছে ধর্মপ্রান মানুষ। এবার ভোর থেকেই এখানে হাজার হাজার সনাতন ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষ এসেছেন এখানে গঙ্গাস্নান করতে। নারীদের পোশাক চেঞ্জের জন্য একটা যাইগা তৈরি  করেছে মা মীরা সিটি গোল্ড থেকে, তাদের ধন্যবাদ জানাই।

 পুরোহিত রতন চক্রবর্তী বলেন, বছরে একবার এখানে গঙ্গাস্নান হয়। গঙ্গাস্নান করলে আমাদের দেহটা পবিত্র হয় এবং পাপ মোচন হয়। তাই প্রতি বছর এই তিথিতে আমরা গঙ্গাস্নান করে থাকি। এ বছর অনেক লোক গঙ্গাস্নান করতে এসেছে।

 
জামাইকে বিষপানে হত্যার অভিযোগ শাশুড়ীর বিরুদ্ধে: রাজবাড়ী থানায় অভিযোগ
রাজবাড়ীতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্টাফ মিটিং অনুষ্ঠিত
রাজবাড়ীতে পদোন্নতিপ্রাপ্ত দুই সদস্যকে  র‌্যাংক ব্যাজ পড়িয়ে দিলেন পুলিশ সুপার
সর্বশেষ সংবাদ