ঢাকা বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্টের নবনির্বাচিত কার্যকরী কমিটি’র প্রথম সভা অনুষ্ঠিত
  • রফিকুল ইসলাম/সুজন বিষ্ণু
  • ২০২৪-০৪-০২ ১৬:১৯:০৯

‘আর্ত মানবতার সেবাই আমাদের লক্ষ্য’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গতকাল ২রা এপ্রিল দুপুরে রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট প্লাজাতে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির নবনির্বাচিত রাজবাড়ী জেলা ইউনিটের কার্যকরী কমিটির ২০২৪-২০২৬ প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  
 সভার শুরুতেই রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজবাড়ী জেলা ইউনিটির নির্বাচিত ও মনোনীত ব্যক্তিবর্গদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। 
 সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজবাড়ী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রেড ক্রিসেন্ট রাজবাড়ী ইউনিটের চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল মোরশেদ আরুজ।
 রাজবাড়ী ইউনিট কর্মকর্তা মোঃ নাজির সিকদারের সঞ্চালনায় সভায় রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজবাড়ী জেলা ইউনিটের নির্বাচিত সম্পাদক মোঃ আকরাম হোসেন, নির্বাচিত সদস্য মোঃ নজরুল ইসলাম, কামরুল হাসান(সোহেল), মোঃ মঞ্জুরুল আলম, ইসমত আরা, মলিনা আক্তার, মনোনীত সদস্য নজরুল ইসলাম, মিজানুর রহমান ও মোঃ সাইফুল ইসলাম সোহাগ স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এ সময় রেড ক্রিসেন্টের যুব সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 
 বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজবাড়ী জেলা ইউনিটের নির্বাচিত সম্পাদক মোঃ আকরাম হোসেন বলেন, আমাকে নির্বাচিত করার জন্য সকল সদস্যকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আমি গত কয়েকবার নির্বাচিত হয়েছি। আমার প্রচেষ্টায় এবং কমিটির সকলের প্রচেষ্টায় রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের এই ভবন তৈরি করা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে দীর্ঘ মেয়াদী এক হাজার টাকায় প্রতীকী মূল্যে এই জমি আমরা নিয়েছিলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জমি দেয়ার পর এই জমির উপর পাঁচ তলা ফাউন্ডেশন দিয়ে ৩তলা কমপ্লিট করি। এই ভবন তৈরি করার সময় সর্বোচ্চ ভূমিকা আমি পালন করেছি। দিনরাত পরিশ্রম করে আমরা সবাই মিলেই এই ভবনটি তৈরি করেছি। সারা বাংলাদেশের রেড ক্রিসেন্ট যারা করে তারা রাজবাড়ীর ইউনিটকে সুন্দর ইউনিট ও একটি মডেল ইউনিট হিসেবে আমাদের দেখে তারা এবং আমাদেরকে সেভাবেই মূল্যায়ন করেন।
 রাজবাড়ী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রেড ক্রিসেন্ট রাজবাড়ী ইউনিটের চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল মোরশেদ আরুজ বলেন, রেড ক্রিসেন্ট একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। এখানে আর্ত মানবতায় সেবাই হচ্ছে প্রধান কাজ। আমাদের রাজবাড়ী অর্থনৈতিক ভাবে দূর্বল এলাকা। নদী ভাঙ্গন প্রবণ একটি অঞ্চল। তারপর বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ রয়েছে। আমরা রেড ক্রিসেন্টকে মানুষের কাছে নিয়ে যেতে চাই। তারই প্রক্রিয়ায় আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমি প্রায় দেড় বছর এখানে সভাপতি হয়ে আসছি। আমিও চেষ্টা করছি মানুষের সাথে কাজ করার জন্য। আপনারা জানেন নির্বাচন হয়েছে এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে একটি কমিটি হয়েছে। যারা নির্বাচিত হয়েছেন আমি আমার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে এবং রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট এর পক্ষ থেকে অভিনন্দন এবং স্বাগত জানাই।
 তিনি আরো বলেন রেড ক্রিসেন্ট নিয়ে মামলা মোকদ্দমা আসলে এটা ভাবা যায় না। এখানে তো স্বার্থ থাকার কথা না। এখানে আরো দেয়ার কথা। আমি বিশেষ করে আমার সেক্রেটারীকে আমি আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই। সে এর আগেও দক্ষতার সাথে কাজ করে এসেছে। সবাই সব সময় থাকবে না পরিবর্তন হবে। অনেকে একাধিকবার এই কমিটিতে এসেছে আবার অনেকেই আসতে পারেনি। এখানে আমরা গ্রুপ বেধে কি কাজ করতে পারলাম এটাই হচ্ছে মূল কথা। যখন আমাদের কমিটি ছিল না এরমধ্যে আমরা কাজ করেছি। ঈদ উপলক্ষে আমরা এক লক্ষ টাকা অনুদান পেয়েছি। সেটা আমাদের কাছে ক্যাশ আসবে না। প্রত্যেকটি ব্যক্তির মোবাইলে টাকা চলে যাবে। আমরা সব উপজেলায় এই টাকা দেয়ার চেষ্টা করেছি। আমরা প্রত্যেকটি এলাকায় আমাদের ছেলেরা কিন্তু বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের ডাটা কালেকশন করে তাদের ছবি নিয়ে তাদের আইডি কার্ড মোবাইল নাম্বার নিয়ে আমরা সিলেক্ট করেছি। ২/১দিনের মধ্যেই তারা টাকা পেয়ে যাবে।
 উল্লেখ্য, কার্যকরী কমিটির সভাতে ২০২৪-২০২৬ মেয়াদে নির্বাচনে নির্বাচিত ৭জন সদস্য ও চেয়ারম্যানের অনুমোদনক্রমে ৩জন কে ২০২৪-২০২৬ মেয়াদের জন্য রাজবাড়ী রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য হিসাবে মনোনীত করা হয়।
 এরআগে রাজবাড়ী জেলা ইউনিটের কার্যকরী কমিটির সম্পাদক পদে নির্বাচনে কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগে বিদায়ী সম্পাদক ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শামীমা আক্তার মুনমুন বাদী হয়ে উচ্চ আদালতে রিট দায়ের করলে নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ কার্যক্রম বিলম্বিত হয়। তবে প্রথম সভায় নির্বাচিত সহ-সভাপতি ফকীর আব্দুল জব্বার অনুপস্থিত ছিলেন।

জামাইকে বিষপানে হত্যার অভিযোগ শাশুড়ীর বিরুদ্ধে: রাজবাড়ী থানায় অভিযোগ
রাজবাড়ীতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্টাফ মিটিং অনুষ্ঠিত
রাজবাড়ীতে পদোন্নতিপ্রাপ্ত দুই সদস্যকে  র‌্যাংক ব্যাজ পড়িয়ে দিলেন পুলিশ সুপার
সর্বশেষ সংবাদ