ঢাকা মঙ্গলবার, মে ২৮, ২০২৪
গোয়ালন্দে প্রবাসীর স্ত্রী ও সন্তানদের মারপিট অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন
  • ষ্টাফ রিপোর্টার
  • ২০২৪-০৪-১৯ ১৯:৪৩:০৫

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলায় জমিজমা বিরোধের জেরে প্রবাসীর স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তানকে মারপিটের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার আসামীদের গ্রেফতার ও সুষ্ঠ বিচারের দাবীতে গতকাল ১৯শে এপ্রিল ঢাকা-খুলনা জাতীয় মহাসড়কের রমজান মাতুব্বর পাড়া এলাকায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
 মানববন্ধনে উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের হাবিল মন্ডলপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ভুক্তভোগী সৌদি আরব প্রবাসী ইউনুছ শেখের স্ত্রী নাজমা বেগম(৩৬) সহ স্থানীয় এলাকাবাসী অংশগ্রহণ করে। 
 জানা গেছে, জমিজমা বিরোধ নিয়ে গত ২৩শে মার্চ সৌদি আরব প্রবাসী ইউনুছ শেখের স্ত্রী নাজমা বেগম(৩৬) ও তার দুই কন্যা সন্তানকে মারপিট করে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে নাজমা বেগম বাদী হয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানা ও রাজবাড়ী পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন।
 মানববন্ধন কর্মসূচীতে নাজমা বেগম বলেন, আমার স্বামী সৌদি আরব প্রবাসী। একই এলাকার হোমেশ শেখ ও তার লোকজন আমার বাড়ীতে ঢুকে আমাকে ও আমার ছেলে মেয়েকে বেধরক মারপিট করে। আমি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। কিন্তু ঘটনা ঘটার প্রায় ১ মাস হতে চললেও পুলিশ কাউকে আটক করেনি। হোমেশ ও তার লোকজন আমাকে ও আমার ৮ বছরের ছেলেকে মেরে গুম করার হুমকি দিচ্ছে। রাত্রে আমার ঘরের পাশে মেহগনির বাগানে মাদকের আড্ডা বসায়। আতঙ্কে শিশু ছেলে ও যুবতী মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়ীতে আশ্রয় নিয়েছি। আমি বাধ্য হয়ে পুনরায় রাজবাড়ী পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ দিয়েছি। 
 লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, তার স্বামীর বাড়ীর সীমানা নিয়ে প্রতিবেশী আত্মীয়দের সাথে পূর্ব থেকেই দ্বন্দ্ব চলে আসছে। স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজন গত ২৩শে মার্চ সকাল ১১টায় শালিশী বৈঠক করে ওই দ্বন্দ্ব মিমাংসা করে দেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও মিমাংসার দিন বিকাল ৩টায় নাজমার প্রতিপক্ষগণ সীমানার খোটা তুলে নতুন খোটা গাড়ার চেষ্টা করে। এতে নাজমা বাঁধা দিলে হোমেশ শেখের হুকুমে তার লোকজন নাজমার বাড়ীতে ঢুকে নাজমা ও তার দুই মেয়েকে এবং ছেলে হযরত আলীকে বেধরক মারপিট করে চলে যায়। পরে প্রতিবেশীরা এসে তাদের উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাসপাতালে ভর্তি করেন। 
 অপরদিকে, নাজমার প্রতিপক্ষ হোমেশ শেখ বলেন, নাজমার অত্যাচারে আমরা অতিষ্ট হয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছি। নাজমা আমার মেয়েকে অকারণে পিটিয়েছে। তাছাড়া  নাজমা আমাকে মাদক কারবারী হিসেবে পুলিশে ধরিয়ে দেয়া ও গণপিটুনিসহ নানা ধরণের ভয় ভীতিতে দেখিয়ে আসছে। নাজমা বিভিন্ন সময় গোয়ালন্দের চিহ্নিত গুন্ডাবাহিনী ভাড়া করে এনে আমাদের পরিবারকে ভয় ভীতি দেখায়। আমরা নাজমার হাত থেকে মুক্তি চাই। তাছাড়া নাজমা এলাকায় কবিরাজ গিরি করেন। তিনি অনেক অসুস্থ মানুষকে ঝাড়ফুক করে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।
 এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ ঘাট থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রাণবন্ধু চন্দ্র বিশ্বাস জানান, দুই পক্ষই থানায় ও কোর্টে মামলা করেছে। হোমেশ শেখ নামে একজনকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। মামলার অধিকতর তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে

 

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে দৌলতদিয়ায় পানিতে ডুবে গেছে পন্টুন॥মহাসড়কে ট্রাকের দীর্ঘ লাইন
বালিয়াকান্দির সাংবাদিক রঘুনন্দন সিকদারের ৪র্থ মৃত্যু বার্ষিকী আজ
পাংশায় আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংকে শ্রেণীকৃত ঋণ আদায় ক্যাম্প অনুষ্ঠিত
সর্বশেষ সংবাদ