ঢাকা বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২৫, ২০২১
মুজিববর্ষে গৃহহীনদের মধ্যে সরকারী ঘর হস্তান্তর বিষয়ে রাজবাড়ীতে প্রেস ব্রিফিং
  • আসহাবুল ইয়ামিন রয়েন
  • ২০২১-০১-২২ ০০:৫১:৪২
মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ভূমি ও গৃহ প্রদান অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে গতাকাল ২১শে জানুয়ারী রাজবাড়ীতে প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম বক্তব্য রাখেন -মাতৃকণ্ঠ।

মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ভূমি ও গৃহ প্রদান অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে রাজবাড়ীতে প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

  গতাকাল ২১শে জানুয়ারী বেলা ১২টায় রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এই প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়। 

  প্রেস ব্রিফিংয়ে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ভূমি ও গৃহ প্রদান সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ে তথ্য উপস্থাপন ও প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম। 

  এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) মোঃ আশেক হাসান, সহকারী কমিশনার মোঃ হাবিবুল্লাহ, রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি খান মোঃ জহুরুল হক, সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক মাতৃকণ্ঠের সম্পাদক খোন্দকার আব্দুল মতিনসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

  প্রেস ব্রিফিংয়ের শুরুতে জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম মুজিববর্ষে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ইচ্ছা ছিল উন্নত বিশে^র মত বাংলাদেশকে ক্ষুধা দারিদ্রমুক্ত সমৃদ্ধ একটি উন্নত সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তোলার। কিন্তু তিনি তার সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে পারেননি। আজকে তারই কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির জনকের সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে ও বাংলাদেশকে বিশে^র বুকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছেন। তার ধারাবহিকতায় সরকার দেশের প্রতিটি জেলার ন্যায় রাজবাড়ী জেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ভূমিসহ গৃহ প্রদান করে একটি মহান উদ্যোগ বাস্তয়বায়ন করতে যাচ্ছে, যা আগামী ২৩শে জানুয়ারী সকালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সারা দেশের প্রতিটি উপজেলায় একযোগে উদ্বোধন করবেন। 

  উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রাজবাড়ী সদর উপজেলার সাথে সরাসরি যুক্ত হয়ে কথা বলার সুযোগ রয়েছে। আমি বিশ^াস করি সরকারের এই মহান উদ্যোগের ফলে রাজবাড়ী জেলার ভূমি ও গৃহহীন পরিবারগুলো নিজেদের মালিকানাধীন একটি বাড়ী প্রাপ্তির মাধ্যমে দেশের সার্বিক উন্নয়নে আগের চেয়ে অনেক বেশী উদ্যোগী হয়ে কাজ করতে পারবে। যাতে করে সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী ভবিষ্যতে দেশে একজনও ভূমি ও গৃহহীন থাকবে না। আর এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশও বিশে^র বুকে উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে আরো একধাপ এগিয়ে যাবে। 

  এছাড়াও প্রেস ব্রিফিংয়ে লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো জানান, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পুনর্বাসন কার্যক্রমের অংশ হিসেবে রাজবাড়ীসহ সারা দেশের ৬৪টি জেলার সকল উপজেলায় সরকারীভাবে নির্মিত গৃহ হস্তান্তর করা হবে। আগামী ২৩শে জানুয়ারী সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঘরগুলোর হস্তান্তর কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। রাজবাড়ী জেলার ৫টি উপজেলার ৭৬০টি গৃহহীন পরিবার সরকারীভাবে নির্মিত এই ঘর পেতে যাচ্ছে। প্রতিটি ঘরের নির্মাণ ব্যয় ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা (২টি আধা পাকা কক্ষ, বারান্দা ও অ্যাটাচড বাথরুমসহ) হিসেবে রাজবাড়ী সদর উপজেলার ১২০টি, পাংশা উপজেলার ১০০টি, কালুখালী উপজেলার ৪০টি, বালিয়াকান্দি উপজেলার ৭০টি ও গোয়ালন্দ উপজেলার ৪৩০টি ঘর নির্মাণের জন্য ১২ কোটি ৯৯ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনের দিন রাজবাড়ী সদর উপজেলার ১১৮টি, গোয়ালন্দ উপজেলার ৩০৩টি, কালুখালী উপজেলার ৪০টি, পাংশা উপজেলার ১০০টি ও বালিয়াকান্দি উপজেলার ৭০টিসহ মোট ৬৩১টি গৃহ উপকারভোগীদের কাছে হস্তান্তর করার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। অবশিষ্ট ১২৯টি বরাদ্দপ্রাপ্ত ঘরের কাজ দ্রুত শেষ করা হবে। রাজবাড়ীর ৫টি উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন থেকে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সরকারী কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, উপকারভোগী ও সুধীজনেরা উপস্থিত হয়ে সংযুক্ত থাকবেন। জেলা প্রশাসক সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন থেকে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন। সকাল সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠান শুরু হবে। ১০টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প হতে প্রেরিত ভিডিও প্রদর্শন ও বক্তৃতা পর্ব শেষে প্রত্যেক উপজেলা গণভবনের সাথে যুক্ত হবে। গণভবন প্রান্ত থেকে মূল অনুষ্ঠান সাড়ে ১০টায় শুরু হবে। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করার পর রাজবাড়ী জেলার ৫টি উপজেলায় স্থানীয়ভাবে উপকারভোগীদের কাছে ঘর হস্তান্তর করা হবে। 

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের ইন্তেকাল
মহান শহীদ দিবস আজ॥মাতৃভাষা আন্দোলনের ৬৯বছর পূর্ণ হলো
সেনাবাহিনীকে নিয়ে আল জাজিরার মিথ্যা প্রতিবেদন আবারো প্রত্যাখ্যান
সর্বশেষ সংবাদ