ঢাকা সোমবার, জানুয়ারী ১৭, ২০২২
বালিয়াকান্দিতে মাস্ক পরায় সাধারণ মানুষের অনীহা
  • তনু সিকদার সবুজ
  • ২০২২-০১-১৪ ০১:২৬:১৫
বালিয়াকান্দি উপজেলাতে সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক ব্যবহারে অনীহা দেখা দিয়েছে। করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন তাদের মধ্যে বিন্দুমাত্র ভয়ের সঞ্চার ঘটায়নি। ছবিটি গতকাল ১৩ই জানুয়ারী তোলা -মাতৃকণ্ঠ।

বালিয়াকান্দি উপজেলাতে সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক ব্যবহারে অনীহা দেখা দিয়েছে। করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন তাদের মধ্যে বিন্দুমাত্র ভয়ের সঞ্চার ঘটায়নি।
  গতকাল ১৩ই জানুয়ারী থেকে কার্যকর হওয়া সরকারী নির্দেশনায় দোকান, শপিংমল ও হাট-বাজারের ক্রেতা-বিক্রেতা এবং হোটেল, রেঁস্তোরাসহ সকল জনসমাগমস্থলে বাধ্যতামূলকভাবে সবাইকে মাস্ক পরিধান, অন্যথায় আইনানুগ শাস্তির সম্মুখীন হওয়ার কথা উল্লেখ্য থাকলেও বালিয়াকান্দিতে সাধারণ জনগণ মাস্ক পরিধানের বিষয়ে একদমই উদাসীন। 
  সরেজমিনে বালিয়াকান্দি বাজার এলাকা ঘুরে দেখা যায়, অধিকাংশ মানুষেরই মুখেই মাস্ক নেই। কেউ কেউ আবার পড়লেও থুতনিতে ঝুলিয়ে রেখেছে। কারো মধ্যেই সামাজিক দূরত্ব বজায়ের বালাই নেই। বালিয়াকান্দি বাসস্ট্যান্ড এলাকায়ও একই চিত্র দেখা যায়। সেখানে বালিয়াকান্দি থেকে বিভিন্ন রুটে ছেড়ে যাওয়া গণপরিবহনগুলোতে হাতে গোনা কয়েকজন যাত্রী মাস্ক পড়লেও অধিকাংশের মুখেই দেখা মেলেনি মাস্কের। 
  মাস্ক না পরার বিষয়ে পঞ্চাশোর্ধ্ব আলী হোসেন বলেন, আমরা গরীব মানুষ। আমাগো করোনা হইবো না। আমরা মাঠে কাজ কইরা খাই। এই শরীরে করোনা ঢুকবো ক্যামনে!
  বাজার করতে আসা রিয়াজ নামে এক যুবক বলেন, মাস্ক ছিল-কিন্তু বাজারে আসার সময় ছিঁড়ে গেছে। বাজার শেষে বাড়ী যাওয়ার সময় কিনবো। 
  মাসুম নামের একজন পথচারী বলেন, মাস্ক পরতে অস্বস্তি লাগে। আর যদি করোনা ধরে, তাহলে মাস্ক পরলেও ধরবে।
  বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ভারপ্রাপ্ত) মোঃ হাসিবুল হাসান বলেন, করোনা রুখতে মাস্ক ব্যবহারের বিকল্প নেই। বহির্বিশ্বে করোনার বিভিন্ন ধরণ যেভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়াচ্ছে তাতে আমাদের উদ্বিগ্নতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকারী নির্দেশনা অমান্য করে যারা মাস্ক পরবে না, স্বাস্থ্য বিধি মানবে না-তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। 

রাজবাড়ী সদরের আলীপুর আশ্রয়ন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের কম্বল বিতরণ
উন্নত বাংলাদেশ গড়তে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে ঃ রাজবাড়ীর নবাগত জেলা প্রশাসক
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে লঞ্চে গাদাগাদি করে যাত্রী বহন॥স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত
সর্বশেষ সংবাদ