ঢাকা শনিবার, মে ২৮, ২০২২
ঈদের দিন রাজবাড়ী সদরের উড়াকান্দা রিসোর্টে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়
  • হেলাল মাহমুদ
  • ২০২২-০৫-০৪ ০১:১১:৪৭

রাজবাড়ীর সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের উড়াকান্দা বাজার সংলগ্ন এলাকায় পদ্মা নদীর পাড়ে গড়ে ওঠা ‘গল্পগৃহ রিসোর্টে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড় হচ্ছে। ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে সব বয়সী মানুষ দলে দলে সেখানে হাজির হচ্ছে।
  স্থানীয়ভাবে উড়াকান্দা বিচ(ইউকে বিচ) হিসেবে খ্যাতি পাওয়া রিসোর্ট এলাকায় সী-বিচের আদলে পদ্মা নদীর অপার সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়। এছাড়াও রয়েছে দল বেধে ট্রলারে নৌ-ভ্রমণের সুযোগ ও নৌকার আদলে তৈরী দোলনাসহ বিনোদনের বিভিন্ন উপকরণ। তবে রিসোর্টে প্রবেশের পথ সরু হওয়ায় যানবাহনের দীর্ঘ সিরিয়াল হচ্ছে। দর্শনার্থীদের অনেকটা পথ পায়ে হেঁটে সেখানে যেতে হচ্ছে। এই ভোগান্তিটুকু ছাড়া নিরাপত্তাসহ আর সবকিছু মোটামুটি ঠিকই আছে। পুলিশের পক্ষ থেকে সেখানে নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
  ঈদুল ফিতরের দিন গতকাল ৩রা মে বিকালে মেয়েকে নিয়ে গল্পগৃহ রিসোর্টে বেড়াতে যান এই প্রতিবেদক। সেখানে গিয়ে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা যায়। তবে ভিড় হলেও সবাইকে আনন্দে মেতে থাকতে দেখা যায়।
  রিসোর্টে আসা স্কুল ছাত্রী কলি আক্তার বলেন, উড়াকান্দার এই রিসোর্টটিতে নাকি অনেক সুন্দর সুন্দর রাইড এসেছে। সেটা উপভোগ করতে গোয়ালন্দ থেকে এসেছি। কিন্তু এখানে এসে দেখি প্রচুর ভিড়। চলাচল করা মুশকিল। তাই রিসোর্টের জায়গা বাড়ানো প্রয়োজন।
  পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসা এডঃ এনামুল হক লিটন বলেন, বিনোদনের জন্য রিসোর্টটি চমৎকার। কিন্তু জায়গা কম হওয়ায় দর্শনার্থীদের চলাচল ও আনন্দে বিঘ্ন ঘটছে। জায়গা ও রাইড বাড়ানো হলে আরও অনেক দর্শনার্থীর সমাগম হবে।
  অটোরিক্সা চালক মনির শেখ বলেন, আগে রিসোর্টটি আগে এত ভিড় ছিল না। কিছু খেলনার ব্যবস্থা (রাইড স্থাপন) করায় বর্তমানে মানুষের ভীড় হতে শুরু করেছে। তবে ভিড় বেশী হওয়ায় দীর্ঘ এলাকা জুড়ে যানবাহন আটকে থাকছে। এতে চলাচলে ভোগান্তি হচ্ছে।
  উদ্যোক্তারা জানান, বর্তমানে ৩ বিঘার মতো জায়গার উপর রিসোর্টটির কার্যক্রম চলছে। চাহিদা বাড়ায় আয়তন বাড়ানোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

ঈদের দিন রাজবাড়ী সদরের উড়াকান্দা রিসোর্টে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়
মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত হচ্ছে পূর্ণদৈর্ঘ্যে সিনেমা ‘ফিরে দেখা’
আগামীকাল মুক্তি পেতে যাচ্ছে শর্টফিল্ম ইত্তেফাক
সর্বশেষ সংবাদ