ঢাকা শনিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২০
করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় রাজবাড়ীতে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ শুরু
  • আসহাবুল ইয়ামিন রয়েন
  • ২০২০-১১-২২ ০০:১১:২২
কোভিড-১৯ সংক্রমণের সেকেন্ড ওয়েভ মোকাবেলায় গতকাল ২১শে নভেম্বর সকালে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সপ্তাহব্যাপী সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম -মাতৃকণ্ঠ।

কোভিড-১৯ সংক্রমণের সম্ভাব্য সেকেন্ড ওয়েভ(দ্বিতীয় ঢেউ) মোকাবেলায় সকলকে সর্বাবস্থায় মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্য বিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সপ্তাহব্যাপী সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। 

  গতকাল ২১শে নভেম্বর সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় প্রাঙ্গণে জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম এই কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। 

  উদ্বোধনকালে জেলা প্রশাসক ছাড়াও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) সারোয়ার আহমেদ সালেহীন এবং অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সরকার আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বাবু বক্তব্য রাখেন। এ সময় জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিভিন্ন সরকারী দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, রোভার স্কাউটস সদস্য ও গণমাধ্যম কর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

  উদ্বোধনকালে জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম বলেন, গত মার্চ মাসের ৮ তারিখে রাজবাড়ী জেলায় প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে আজ পর্যন্ত আমরা একটা লম্বা সময় অতিক্রম করেছি। মাঝে কিছু দিনের জন্য এই রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কিছুটা কমলেও গত এক সপ্তাহ ধরে এই রোগে আক্রান্তের সংখ্যা আবারো বৃদ্ধি পাচ্ছে। সামনে শীত আরো বেশী পড়লে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে। সেই বিষয়টিকে বিবেচনায় নিয়ে কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সপ্তাহব্যাপী সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৩টি টিম জেলার বিভিন্ন জায়গায় সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ করবে। এর পাশাপাশি মাস্ক না পরা ও স্বাস্থ্য বিধি অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে। জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি ৫টি উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগেও সপ্তাহব্যাপী এই সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন পরিচালনা করা হবে। 

  জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম আরও বলেন, বিশ্বব্যাপী প্রতিদিন কোভিড-১৯ সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে অনেক দেশ আবার লকডাউন দিতে বাধ্য হচ্ছে। এর ফলে তাদের জীবনযাত্রাসহ অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে স্থবিরতা নেমে আসছে। কাজেই আমরা দেশপ্রেমিক সচেতন নাগরিক হিসেবে কখনোই চাইব না কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী বৃদ্ধির কারণে আমাদের দেশেও ওইসব দেশের মতো লকডাউন পরিস্থিতির কারণে জীবনযাত্রা ও অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে স্থবিরতা নেমে আসুক। এই পরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসার জন্য আমাদের সকলকে অবশ্যই মাস্ক পড়াসহ সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে। তাহলেই আমরা কোভিট-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ ভালোভাবেই মোকাবেলা করতে পারবো। 

আরডিএ’র বার্ষিক সাধারণ সভা বিতর্ক কর্মশালা-অফিস উদ্বোধন
রাজবাড়ীর স্বদেশ নাট্যাঙ্গনের নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী পরিষদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত
রাজবাড়ীতে দেশসেরা প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলামকে সম্মাননা প্রদান
সর্বশেষ সংবাদ