ঢাকা সোমবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২১
রাজবাড়ীতে একক ও মিশ্র ফল বাগানে সব্জি চাষ করে সফলতা পাচ্ছে কৃষক
  • কাজী আব্দুল কুদ্দুস বাবু
  • ২০২১-০২-১১ ০১:৫৪:৫২

রাজবাড়ীতে একক ও মিশ্র ফল বাগানে সব্জি চাষ ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। ইতোমধ্যে জেলার বেশ কয়েকটি উপজেলায় বাগান মালিকগণ ফল বাগানের মধ্যে আন্তঃফসল হিসেবে নিরাপদ ও পুষ্টি সমৃদ্ধ উচ্চ মুল্যের সব্জি আবাদ করে ব্যাপক লাভবান হচ্ছেন। 

  ফল বাগান সৃজন হবার পর ফল গাছ থেকে উৎপাদন আসতে বেশ কয়েক বছর সময় লাগে। এই সময়ে ফল বাগান যেমন ড্রাগন ফলে বাগানের মধ্যে উচ্চমূল্যের বারি লেটুস-১ ও বাড়ী ব্রোকলি-১ চাষ করা সহজ। এতে অল্প সময়ে কৃষক অনেক লাভবান হয়।

  রাজবাড়ী জেলার সদর উপজেলার শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের রূপপুর গ্রামের সফল চাষী গফুর কাজী। তিনি তার বসতবাড়ীর পাশ্বে ড্রাগন ফলের বাগানে নিরাপদ ও উচ্চ পুষ্টি সমৃদ্ধ বারি লেটুস-১ ও বাড়ী ব্রোকলি-১ চাষ করে এলাকায় সাড়া ফেলে দিয়েছেন। প্রথমে তিনি ২৫ শতাংশ জমিতে উচ্চ মুল্যের সব্জি চাষ করেন। এতে ব্যায় হয় ১০ হাজার টাকা। অল্প সময়ে ২৫-৩০ হাজার টাকর সবিাজ বিক্রি করেছেন। আগামী ৮-১০ দিনে আরো ১০-১২ হাজার টাকার সব্জি বিক্রি করবেন।

  ইতোমধ্যে আবাদকৃত লেটুস ও ব্রোকলি বিক্রি শুরু করে দিয়েছেন। বাজারে ব্যাপক চাহিদাও রয়েছে। ভালো দাম পাওয়ায় তিনি বেশ খুশি।

  বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ফরিদপুর কার্যলয়ের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এএফএম রুহুল কুদ্দুস বলেন, বসতবাড়ীর আশে পাশের ফল বাগানের ২সারির মাঝখানের পতিত জায়গাগুলিকে ধীরে ধীরে সব্জি আবাদের আওতায় আনা হচ্ছে। এত একদিকে দেশে সব্জির চাহিদা যেমন পূরণ হচ্ছে। অপরদিকে কৃষক ভাইরা স্বাবলম্বি হচ্ছেন।

  কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ফরিদপুর কার্যলয়ের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. সেলিম আহম্মেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক বসতবাড়ীর প্রতি ইঞ্চি জায়গা জমি ব্যবহার করতে কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট কাজ করে যাচ্ছে। অল্প সময়ে একই জমিতে কৃষক গণ উচ্চ ফলনশীল ফল ও সব্জি আবাদ করতে পারবে। এতে দেশের মানুষ ভীষনবাবে উপকৃত হবেন। এই ফল ও সব্জি দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানি করা যাবে।

  তিনি আরো বলেন, কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ফরিদপুর কার্যলয়ের কর্মকর্তারা রাজবাড়ীর এই ধরনের কৃষক,ফল বাগান মালিকদের এই ধরনের চাষাবাদে প্রতিনিয়ত উদ্ভুদ্ধ করছেন। মিশ্র বা ফলবাগানে আন্তঃফসল হিসেবে নিরাপদ পুষ্টি সমৃদ্ধ উচ্চ মুল্যের সব্জি উৎপাদন  প্রযুক্তি ধীরে ধীরে কৃষকদের মাঝে ছড়িয়ে পড়ছে। আগামীতে রাজবাড়ী জেলা ফল ও সব্জি উৎপাদনে একটি অনন্য জেলায় পরিনত হবে।

রাজবাড়ী জেলায় পানের চাহিদা না থাকায় ন্যায্য দাম না পেয়ে হতাশায় চাষীরা
গোয়ালন্দর সর্বত্র গাছে গাছে দুলছে সজিনা
টমেটোর দাম কম হওয়ায় হতাশ গোয়ালন্দের চাষীরা
সর্বশেষ সংবাদ