ঢাকা বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১১, ২০২২
রাজবাড়ীতে শ্রদ্ধা ভালোবাসায় শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত
  • আসাদুজ্জামান নুর
  • ২০২২-০৮-০৬ ০০:৫৮:০৮
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে গতকাল ৫ই আগস্ট সকালে অফিসার্স ক্লাব মিলনায়তনে শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও আ

রাজবাড়ীতে শ্রদ্ধা ভালোবাসায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে।
  এ উপলক্ষ্যে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে গতকাল ৫ই আগস্ট সকালে অফিসার্স ক্লাব মিলনায়তনে শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। 
  জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী, বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা পরিষদের প্রশাসক বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান, সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ ইব্রাহিম টিটন, রাজবাড়ী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আবুল হোসেন, সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুল জলিল মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজ আহমেদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি হেদায়েত আলী সোহরাব প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সভা সঞ্চালনা করেন জেলা কালচারাল অফিসার পার্থ প্রতিম দাশ। 
  এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) মোঃ মাহাবুর রহমান শেখ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) জয়ন্তী রূপা রায়, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(শিক্ষা ও আইসিটি) সূবর্ণা রাণী সাহা, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এস.এম সহীদ নূর আকবর, এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ রবিউল ইসলাম, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রুবাইয়াত মোঃ ফেরদৌস, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক গোলাম মোঃ আজম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মোঃ সাহাবুদ্দীন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মাঈন উদ্দিন চৌধুরী, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মার্জিয়া সুলতানা, উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) উম্মে সালমা, গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই’র উপ-পরিচালক মোঃ শরিফুল ইসলাম, জেলা তথ্য অফিসার শাহিন মিয়াসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। 
  প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী বলেন, শেখ কামাল ছিলেন একজন সফল ক্রীড়া সংগঠক। তিনি নিজেও খেলাধুলা করতেন। তিনি আবহানী ক্রীড়া চক্রের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। অল্প বয়সেই মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন। একদম সাদামাটা জীবন-যাপন করতেন। রাষ্ট্রপতির সন্তান হয়েও কখনো ক্ষমতা দেখাননি। তা সত্ত্বেও তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দেওয়া হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এ দেশ স্বাধীন হয়েছিল। কিন্তু বিএনপি-জামাত ও তাদের সমমনারা বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা হিসেবে মানতে চায় না। তারা পাঠ্যবইয়ে ইতিহাস বিকৃত করেছিল। বিএনপির সময়ে ২টি সরকার ছিল। একটি খালেদা জিয়ার সরকার, আরেকটা হাওয়া ভবনের সরকার। সেখান থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করা হতো। বিএনপি নেতারা কথায় কথায় বলে তাদের নেতাকর্মীদের নাকি মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করা হচ্ছে। কিন্তু এমন একটা ঘটনাও তারা দেখাতে পারবে না। 
  জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান বলেন, শেখ কামালকে নিয়ে অনেক অপ্রচার হয়েছে। কিন্তু সঠিক ইতিহাসটা আমরাও জানাতে ব্যর্থ হয়েছি। শেখ কামাল ছিলেন আবাহনীর প্রতিষ্ঠাতা, ঢাকা থিয়েটারের প্রতিষ্ঠাতা, বঙ্গবন্ধুর সন্তান। তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। সফল ক্রীড়া সংগঠক, ক্রীড়াবিদ, সেতার বাদকসহ নানা গুণের অধিকারী ছিলেন। 
  আলোচনা সভার শেষে দিবসটি উপলক্ষ্যে আয়োজিত রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। 

রাজবাড়ী পাসপোর্ট অফিস এলাকায় দালাল চক্র সক্রিয়॥১জনকে মারপিট
রাজবাড়ীতে প্রয়াত এডঃ রফিকুস সালেহীনের স্মরণে সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
পবিত্র আশুরা উপলক্ষে রাজবাড়ীতে আঞ্জুমান-ই-কাদেরীয়ার উদ্যোগে বিশাল শোক র‌্যালী
সর্বশেষ সংবাদ