ঢাকা শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির ঘটনায় রাজবাড়ীতে মামলা
  • মীর সামসুজ্জামান সৌরভ
  • ২০২৩-০৫-২৫ ১১:১৭:৪৭

বিএনপির জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির ঘটনায় রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদসহ ৫ জনের নাম উল্লেখ করে রাজবাড়ীতে ২০ কোটি টাকার মানহানি মামলা হয়েছে।

গতকাল ২৪শে মে বেলা ১২টার দিকে রাজবাড়ীর ২নং আমলী আদালতে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় শাখার সাবেক সভাপতি শেখ সোহেল রানা টিপু বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাত আরো ২০/৩০জনকে আসামী করা হয়।

বাদী পক্ষের আইনজীবী মাসুদ আবেদিন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

মামলার আসামীরা হলো রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোঃ আবু সাঈদ চাঁদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডঃ নাদিম মোস্তফাসহ অজ্ঞাত ২০/৩০ জন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ১৯শে মে বিকেলে রাজশাহীর পুটিয়ার শিবপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে বিএনপি'র জনসভায় রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোঃ আবু সাঈদ চাঁদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দিয়ে যে বক্তব্য দেন, তা ওই দিন সন্ধ্যা সাতটার দিকে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ সোহেল রানা টিপু বিভিন্ন ইলেকট্রনিক প্রচারমাধ্যম, অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখতে পেয়ে মর্মাহত ও অপমানিত হন। বিএনপি নেতার ওই বক্তব্যে রাজবাড়ীর অসংখ্য আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীর মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয় ও অপমানবোধ করেন। ওই বক্তব্যের পর থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রত্যেক নেতাকর্মী আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন এবং বাংলাদেশে বড় ধরণের অরাজকতা সৃষ্টিসহ নাশকতামূলক কর্মকান্ড ঘটতে পারে বলে আশংকা করছেন। তাছাড়া বিভিন্ন মাধ্যমে বিএনপি নেতার বক্তব্য প্রচার হওয়ায় ২০ কোটি টাকার মানহানি হয়েছে।

মামলার বাদী শেখ সোহেল রানা টিপু বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকির পর সারাদেশে স্বতঃস্ফূর্তভাবে বিক্ষুব্ধ মানুষ হুমকিদাতার বিচার চাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীকে হত্যারচেষ্টা ও কবরস্থানে পাঠানোর হুমকি জাতিসহ বিশ্ব বিবেক মানে না। প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা করতে বিএনপির যে এটা নীলনকশা ছিলো তা ফাঁস হয়ে গেছে এবং জাতি সেটা জেনে গেছে। এজন্য আমরা আইনের দারস্থ হয়ে বিচার চেয়েছি। আশা করছি আদালতে সুষ্ঠু বিচার পাবো।

রাজবাড়ী বার এসোসিয়েশনে আইনজীবী (জিপি) আনোয়ার হোসেন বলেন, আদালত মামলাটি গ্রহণ করেছেন। তবে এখনও আদেশ পাওয়া যায়নি।

রাজবাড়ীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত
ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত পবিত্র ঈদুল আযহা আজ
রাজবাড়ীতে অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে পুনাকের ঈদ উপহার বিতরণ
সর্বশেষ সংবাদ