ঢাকা বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
রাজবাড়ীতে শহীদ মিনার থেকে ফুলের ডালা সরানোর ভিডিও করায় সাংবাদিকের উপর হামলা
  • মীর সামসুজ্জামান
  • ২০২৪-০২-২১ ১৫:৩২:৪৩

রাজবাড়ী শহরের শহীদ খুশি রেলওয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে ফুলের ডালা সরানোর ভিডিও করায় আব্দুল হালিম শেখ(৩০) নামে এক সাংবাদিকের ওপর হামলা করেছে স্থানীয় কয়েকজন যুবক।

 গতকাল ২১শে ফেব্রুয়ারী দুপুরে শহীদ খুশি রেলওয়ে ময়দানের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সাংবাদিক আব্দুল হালিম শেখ রাজবাড়ী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে।

 জানা গেছে, সাংবাদিক আব্দুল হালিম রাজবাড়ী পৌরসভার ৭নম্বর ওয়ার্ডের চর লক্ষ্মীপুর গ্রামের জালাল শেখের ছেলে। তিনি দৈনিক দেশ রূপান্তর পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি।

 রাজবাড়ী থানায় লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল ২১শে ফেব্রুয়ারী দুপুর পৌনে ১২টার দিকে রাজবাড়ী শহরের শহীদ খুশি রেলওয়ে ময়দানের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সাংবাদিক আব্দুল হালিম শেখ পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য যান। এ সময় শহীদ মিনারের বেদি থেকে ফুলের ডালা নিয়ে যাচ্ছিলেন ফুলের দোকানীর কর্মচারীরা। বিষয়টি ফোনে ভিডিও ধারণ করেন সাংবাদিক হালিম শেখ। তাকে ভিডিও করতে দেখে ফুলের ডালা নিয়ে যাওয়া কয়েকজন ব্যক্তি এগিয়ে আসেন। তারা ভিডিও করার কারণ জানতে চান। তখন সাংবাদিক পরিচয় দেয়ার পর ভিডিও মুছে ফেলতে বলেন। তিনি ভিডিওটি মুছতে অস্বীকৃতি জানালে, অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জন তাকে টেনে হিঁচড়ে শহীদ মিনারের পশ্চিম পাশে ঝোপের ভেতর নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় তার চোখের কোণাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফোলা জখম হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ সদস্যরা সেখানে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যান। পরে সাংবাদিক হালিমের সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

 প্রত্যক্ষদর্শী মোছাঃ উর্মি বলেন, আমি শহীদ মিনারের সামনে বসে ছিলাম। তখন কয়েকজন যুবক শহীদ মিনার থেকে ফুলের ডালা নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় এক সাংবাদিক বিষয়টি ভিডিও করলে তাকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গিয়ে ১০/১২ জন যুবক মারধর করেন। পরে পুলিশ এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যান।

 ভুক্তভোগী সাংবাদিক আব্দুল হালিম শেখ বলেন, আমি পেশাগত দায়িত্ব পালনের উদ্দেশ্য শহীদ মিনারের ছবি ও ভিডিও নিচ্ছিলাম। তখন স্থানীয় কয়েকজন যুবক ফুলের ডালা নিয়ে যাচ্ছিল। আমি বিষয়টি ভিডিও করলে তারা আমাকে বাঁধা দেয়। একপর্যায়ে তারা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ও টেনে হিঁচড়ে শহীদ মিনারের পাশে ঝোপের ভেতর নিয়ে গিয়ে গাছের ডাল দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। তখন পুলিশ ও আনসার সদস্যরা এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে যায়।

 রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) মোঃ ইফতেখারুজ্জামান বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সাংবাদিকের সঙ্গে যে ঘটনা ঘটেছে সেটি কোনও ভাবেই কাম্য নয়। আমরা এ ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজ হাতে পেয়েছি। কয়েকজনকে আমরা ইতো মধ্যে শনাক্ত করেছি। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জামাইকে বিষপানে হত্যার অভিযোগ শাশুড়ীর বিরুদ্ধে: রাজবাড়ী থানায় অভিযোগ
রাজবাড়ীতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্টাফ মিটিং অনুষ্ঠিত
রাজবাড়ীতে পদোন্নতিপ্রাপ্ত দুই সদস্যকে  র‌্যাংক ব্যাজ পড়িয়ে দিলেন পুলিশ সুপার
সর্বশেষ সংবাদ