ঢাকা মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২২
শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার একমাত্র ভরসা নড়বড়ে বাঁশের সাঁকো
  • গোয়ালন্দ প্রতিনিধি
  • ২০২২-০৯-২৫ ০২:১৫:২৯

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের চরবেতকা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে যাতায়াতের একমাত্র ভরসা নড়বড়ে বাঁশের সাঁকো। 

   শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি ওই এলাকার লোকজনও বাঁশের সাঁকোটি দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হয়। এতে তাদেরকে নানা দুর্ভোগ পোহাতে হয়। অনেক সময় সাঁকো থেকে পড়ে গিয়ে দুর্ঘটনাও ঘটে। পানিতে পড়ে নষ্ট হয় বই-খাতা ও পরিধেয় পোশাক নষ্ট হয়।

   জানা গেছে, ১৯৭৫ সালে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা হয়। কয়েক বছর পর পদ্মার ভাঙনের কবলে পড়লে বিদ্যালয়টিকে এক কিলোমিটার দূরে চর দেলন্দিতে সরিয়ে নেয়া হয়। এরপর আবারও দ্বিতীয় দফায় ভাঙনের কবলে পড়লে চর দেলন্দির বিপরীত পাশে সরিয়ে আনা হয়। নড়বড়ে সাঁকো দিয়ে যাতায়াতের কারণে  শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের দুশ্চিন্তায় থাকতে হয়। 

   শিক্ষার্থীরা জানায়, বাঁশের সাঁকো পর হয়ে স্কুলে আসা-যাওয়া করতে তাদের ভয় করে। অনেক সময় সাঁকো পার হতে গিয়ে কেউ কেউ পা পিছলে পানিতে পড়ে যায়। এতে বই-খাতা ও কাপড়-চোপড় ভিজে যায়। পরীক্ষার সময় পড়ে গেলে বেশী দুর্ভোগে পোহাতে হয়।

   স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি লিয়াকত হোসেন বলেন, খালের উপর একটি সেতু নির্মাণের ব্যবস্থা করার জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিস ও উপজেলা প্রশাসনকে জানিয়েছি। আশা করি একটা ব্যবস্থা হয়ে যাবে। 

   উপজেলা প্রকৌশলী বজলুর রহমান খান বলেন, ওই খালের উপর উপর একটি সেতু নির্মাণের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ এলেই কাজ শুরু করা হবে। 

পাংশায় জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সদস্যদের সংবর্ধনা
ভ্রাম্যমাণ আদালতে বালিয়াকান্দির নকল সার কারখানা মালিকের জেল-জরিমানা
পাংশায় আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস উদযাপনে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত
সর্বশেষ সংবাদ