ঢাকা শনিবার, জুলাই ২, ২০২২
আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা জিল্লুল হাকিমের শুভেচ্ছা
  • স্টাফ রিপোর্টার
  • ২০২২-০৬-২৩ ০২:৩৪:২৪

‘বাংলাদেশ-বঙ্গবন্ধু-আওয়ামী লীগ’- বাঙালির ইতিহাসে এই শব্দগুলো অবিনশ^র, চিরঅম্লান। বাঙালির ইতিহাসে এ তিনটি নাম একই সূত্রে গাঁথা। বাঙালির মেলবন্ধনে স্রোতধারায় যে ইতিহাস রচিত হয়েছে তা বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগকে ছুঁয়ে বাংলাদেশ নামের ব-দ্বীপে মিলিত হয়েছে। জনগণই আওয়ামী লীগের শক্তি হয়ে জাতির প্রতিটি অর্জনে কল্যাণকর ভূমিকা রেখে যাচ্ছে।
  বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ৭০ এর নির্বাচনে ঐতিহাসিক বিজয়, ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম’- খ্যাত কালজয়ী ভাষণ ও ২৬শে মার্চ প্রথম প্রহরে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি হিসাবে স্বাধীনতার ঘোষণার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাঙালি জাতি স্বাধীন জাতি-রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। অবশেষে দীর্ঘ ৯মাসের এক রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ৩০ লাখ শহীদের রক্ত ও দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের। স্বাধীনতার পূর্ব, স্বাধীনতা যুদ্ধ থেকে শুরু করে আজকের পদ্মা সেতু সহ সবগুলো মেগা প্রকল্প উন্নয়নে নেতৃত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।
  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩ বছরের দীর্ঘ পথচলা সোনালী ফসল হয়ে আজকের বাংলাদেশ। ৫১ বছরের বাংলাদেশের সাড়ে ২৪ বছর দেশ শাসন করার সুযোগ পেয়েছে দলটি। এই দীর্ঘ সময়কালের ২১ বছরের নেতৃত্ব দিচেছন বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা। ১৯৭৫ সালের পর বিপর্যয়ের মুখে পড়া বাংলাদেশকে নতুন করে প্রাণ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্বাধীন বাংলাদেশ যেমন বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে তৈরি, তেমনি আজকের ডিজিটাল বাংলাদেশও বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নিপুন দক্ষতা ও অদম্য নেতৃত্বের কারণেই আমরা পেয়েছি।
  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের এবারের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে আমি এ আশা ব্যক্ত করি যে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গৌরবে ও অর্জনে হয়ে উঠুক বাঙালি অন্তরে চিরন্তর বন্ধন আর মেলবন্ধনের স্রোতধারায় দীপশিখা। আজকের এই দিনে হাজার বছবের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতাসহ স্বাধীনতা সংগ্রামে সব শহীদর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করি। এছাড়াও আমি সকলকে অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধারণ করে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু মেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে লালন করে দেশপ্রেমের মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা নেতৃত্বে উন্নত রাষ্ট্র গঠনের আহ্বান জানাই।
  ৭৩ বছর অনেকটা সময়। এ মাইলফলকে আসতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে পার হতে হয়েছে অনেক পথ। আজকের এই দিনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী, কেন্দ্রীয় কমিটির সকল নেত্রীবৃন্দসহ পদ্মা পাড়ের রাজবাড়ী জেলার সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।
শুভেচ্ছান্তে
(মোঃ জিল্লুল হাকিম)
জাতীয় সংসদ সদস্য
রাজবাড়ী-২ আসন

সভাপতি
রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগ।

ট্রেজারী পরিদর্শনে ডিসি
করোনার বিস্তার ঠেকাতে রাজবাড়ীতে মোবাইল কোর্টের তৎপরতা॥মাস্ক বিতরণ
রাজবাড়ীতে জেকা বাজারের প্রতারিত গ্রাহকদের মানববন্ধন
সর্বশেষ সংবাদ