ঢাকা বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১১, ২০২২
বালিয়াকান্দিতে আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন সভায় মারামারি॥২জন হাসপাতালে
  • তনু সিকদার সবুজ
  • ২০২২-০৭-০২ ০২:৩৭:২৭
বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডে গত ৩০শে জুন বিকালে আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন সভায় মারামারিতে আহত খোকন মিয়া ও রইচ মোল্লা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে -মাতৃকণ্ঠ।

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন সভায় মারামারির ঘটনা ঘটেছে। 
  গত ৩০শে জুন বিকালে নবাবপুর ইউনিয়নের বড় হিজলী আলিম মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে এ ঘটনা ঘটে। এতে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক বাশারুল আলম বাপ্পুসহ ৩জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে বাপ্পু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। খোকন মিয়া ও রইচ মোল্লা নামে অপর ২জন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 
  এ ঘটনায় বাপ্পু বাদী হয়ে নবাবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাদশা আলমগীরসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে বালিয়াকান্দি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযুক্ত অন্যরা চেয়ারম্যান বাদশা আলমগীরের অনুসারী। 
  বাশারুল আলম বাপ্পু জানান, দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নবাবপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়াড আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনের সভা চলছিল। সভা শুরুর কিছুক্ষণ পরই দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত নবাবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাদশা আলমগীরের উস্কানীতে তার অনুসারীরা নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালায় এবং মঞ্চ ও চেয়ার-টেবিল ভাংচুর করে। 
  সভায় উপস্থিত থাকা বালিয়াকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, বাদশা আলমগীর বিগত ইউপি নির্বাচনে দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। তার পরিবারের সদস্যরা বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। বিএনপি কর্মীদের নিয়েই সে হামলা চালিয়েছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। 
  নবাবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাদশা আলমগীর বলেন, এই ঘটনার সাথে আমি সম্পৃক্ত না। এই ঘটনার সূত্রপাত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে। আমাকে শুধু শুধু এখানে জড়ানো হচ্ছে।

পাংশা মডেল থানায় আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
পাংশা পৌরসভা পরিদর্শনে ডিডিএলজি
বালিয়াকান্দিতে পেঁপে গাছের সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
সর্বশেষ সংবাদ