ঢাকা শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
পাংশার জামান পরিবহনের বাস ভাংচুর॥টিকিট কাউন্টার মাস্টারের বাড়ী লক্ষ্য করে হাত বোমা নিক্ষেপ
  • মোক্তার হোসেন
  • ২০২৩-০৫-২৪ ০৩:১৭:৪১

রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার কশবামাজাইল ইউপির নাদুরিয়া গ্রামে প্রতি মাসে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা চাঁদার দাবীতে জামান পরিবহনের একটি বাস ভাংচুর ও পরিবহনের নাদুরিয়া ঘাট বাসস্ট্যান্ডের টিকিট কাউন্টার মাস্টার মোঃ বাদশা মন্ডলের বাড়ী লক্ষ্য করে দুর্বৃত্তদের হাত বোমা নিক্ষেপের ঘটনায় গতকাল ২৩শে মে পাংশা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

  পাংশা থানার মামলা নং-১৬, ১৪৩/৪৪৭/৩৮৫/৪২৭/৫০৬(২) পেনাল কোড। মোঃ বাদশা মন্ডল নিজে বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বাদশা মন্ডল কশবামাজাইল ইউপির ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার এবং নাদুরিয়া গ্রামের মৃত বিলাত আলী মন্ডলের পুত্র।

  মামলায় ৬জনকে এজাহারনামীয় ও আরো ৮/১০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে। তবে গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সময়ে মামলার কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি থানা পুলিশ।

  মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, বাদী মোঃ বাদশা মন্ডল নাদুরিয়া সাকিনস্থ তার বসত বাড়ী সংলগ্ন নাদুরিয়া ঘাট বাস স্ট্যান্ডের টিকিট কাউন্টার মাস্টার। তার নিয়ন্ত্রণে ২টি সৌহার্দ্য পরিবহন, ১টি রাবেয়া পরিবহন ও ১টি জামান পরিবহন বাস নাদুরিয়া থেকে ঢাকায় নিয়মিত যাতায়াত করে। গত ১৭ই মে রাত আনুমানিক ১টার দিকে তার বসত বাড়ী সংলগ্ন অবস্থিত সৌহার্দ্য পরিবহন বাসের মধ্যে ঘুমিয়ে থাকা ড্রাইভার কানাইকে অজ্ঞাতনামা ১০/১৫ জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী জোরপূর্বক বাস হতে নামিয়ে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায় এবং বাস চালাতে হলে  প্রতিমাসে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। তখন ড্রাইভার কানাই সন্ত্রাসীদের দাবীকৃত চাঁদার টাকা দিতে স্বীকার করলে ড্রাইভারকে ছেড়ে দেয়। ড্রাইভার কানাই বাদশা মন্ডলের বাড়ীতে ফিরে তাকে বিষয়টি অবগত করে। গত ১৮ই মে দুপুর আনুমানিক ১টার দিকে অজ্ঞাতনামা একজন ব্যক্তি বাদশা মন্ডলের ব্যবহৃত মোবাইলে কল করে কমিউনিস্ট পার্টির একজনের নাম পরিচয় দেয় এবং ড্রাইভারের নিকট দাবীকৃত চাঁদার টাকা বিকাশের মাধ্যমে দিতে বলে। বাদশা মন্ডল চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করলে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি তাকে খুন করে ফেলবে বলে হুমকি প্রদর্শন করে। গত ২১শে মে রাত আনুমানিক পৌনে ১টার দিকে মামলার এজাহারনামীয় আসামীরাসহ অজ্ঞাত ৮/১০জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী বে-আইনী জনতায় দলবদ্ধ হয়ে নাদুরিয়া গ্রামের বাদশা মন্ডলের বাড়ী সংলগ্ন খালী জায়গার উপর অনধিকার প্রবেশ করে জামান পরিবহনের বাস ভাংচুর করতে থাকে। শোর চিৎকার করলে সন্ত্রাসীরা পরপর ২টি হাত বোমা নিক্ষেপ করে আতঙ্ক সৃষ্টি করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

  জানা যায়, জামান পরিবহনের বাসের সামনের গ্লাস এবং ৬টি জানালার গ্লাস ভাংচুর করে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। খবর পেয়ে রাতেই কশবামাজাইল ক্যাম্পের পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পরদিন ২২শে মে দুপুরে পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বালিয়াকান্দিতে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক জনসচেতনতামূলক সেমিনার অনুষ্ঠিত
ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে দৌলতদিয়া ঘাট পরিদর্শনে জেলা পুলিশ সুপার
গোয়ালন্দে শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে পশু কেনাবেচার হাট
সর্বশেষ সংবাদ