ঢাকা মঙ্গলবার, জানুয়ারী ২৬, ২০২১
রাজবাড়ীতে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত
  • চঞ্চল সরদার
  • ২০২১-০১-১১ ০০:৩৯:৩৬
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে গতকাল ১০ই জানুয়ারী রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী বক্তব্য রাখেন। ডানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণের দৃশ্য -

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নানা কর্মসূচী পালিত হয়েছে।

  এ উপলক্ষে গতকাল ১০ই জানুয়ারী সকালে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জাতীয় সঙ্গীতের সাথে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর বিকাল ৩টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণের পর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

  আলোচনা  সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী। 

  জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডাঃ শেখ আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও জেলা বার এসোসিয়েশনের সভাপতি এডঃ মোঃ শফিকুল আজম মামুন, জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মহসীন উদ্দিন বতু, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডঃ উমা সেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ রমজান আলী খান, রাজবাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এডঃ মোঃ উজির আলী শেখ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান হাফিজ, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মোঃ রকিবুল ইসলাম পিন্টু, বসন্তপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান মিয়া ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া মাসুদ রাজীব প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 

  প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী বলেন, তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের বাঙ্গালী জাতি যখন অবহেলিত ছিলো তখন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান স্বপ্ন দেখতেন একটি স্বাধীন বাংলাদেশের। ছাত্র জীবন থেকেই শুরু হয় তার রাজনৈতিক জীবন। ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ ঢাকার তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে ভাষণ দিয়ে দেশের স্বাধীনতার ষোষণা দেন। ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মধ্য দিয়ে অর্জিত হয় বাংলাদেশের স্বাধীনতা। কিন্তু বঙ্গবন্ধু তখনও পাকিস্তানের কারাগারে বন্দী থাকায় বিজয় পূর্ণতা পায়নি। মুক্তি পেয়ে ১৯৭২ সালের ১০ই জানুয়ারী দেশে ফেরার পর তিনি দেশকে তার স্বপ্নের সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলছিলেন তখনই ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট সপরিবারে তাকে হত্যা করা হয়। খুনীরা ভেবেছিল তাকে হত্যা করে স্বাধীনতার পক্ষের সকল শক্তিকে নিশ্চিহ্ন করে দিবে। কিন্তু তাদের সেই অপচেষ্টা সফল হয়নি। বর্তমানে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছেন, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। 

রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সভা॥মেয়র প্রার্থী তিতুর বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে
রাজবাড়ীতে নৌকা প্রতীকের সাথে বেঈমানী করলে বঙ্গবন্ধুর রক্তের সাথে বেঈমানী হবে--- কাজী ইরাদত আলী
রাজবাড়ী পৌর ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন
সর্বশেষ সংবাদ