ঢাকা রবিবার, আগস্ট ১, ২০২১
ফরিদপুরে বেসরকারী একটি হাসপাতালে কোভিড-১৯ আইসোলেশন ইউনিট উদ্বোধন
  • মাহবুব হোসেন পিয়াল
  • ২০২১-০৬-২৪ ০২:০০:২২
ফরিদপুরে ১৬ শয্যা বিশিষ্ট আইসিইউ ও সিসিইউ ইউনিটসহ একটি বেসরকারী হাসপাতালে ‘কোভিড-১৯ আইসোলেশন ইউনিট’ গত ২২শে জুন উদ্বোধন করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার -মাতৃকণ্ঠ।

ফরিদপুরে ১৬ শয্যা বিশিষ্ট আইসিইউ(নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) ও সিসিইউ(করোনারি কেয়ার ইউনিট) ইউনিটসহ একটি বেসরকারী হাসপাতালে ‘কোভিড-১৯ আইসোলেশন ইউনিট’ যাত্রা শুরু করেছে। এ হাসপাতালটির নাম রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতাল। 

  এর আগে ফরিদপুর জেলায় শুধুমাত্র ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৬ শয্যা বিশিষ্ট আইসিইউ ও ৩০ শয্যা বিশিষ্ট সিসিইউ ইউনিট এবং ফরিদপুর ডায়াবেটিক সমিতি পরিচালিত ফরিদপুর হার্ট ফাউন্ডেশনে ১০ শয্যার একটি সিসিইউ ইউনিট চালু রয়েছে।

  রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতালটি ফরিদপুর শহরতলীর ডিক্রিরচর ইউনিয়নের টেপুরাকন্দি এলাকায় মুজিব সড়কের পূর্বপাশে অবস্থিত। ১৬ শতাংশ জমির উপর ২০১৭ সালের ৩০ শয্যার হাসাপাতাল হিসেবে অনুমতি নিয়ে যাত্রা শুরু করে এ হাসপাতালটি। তবে ১৬ শয্যা বিশিষ্ট আইসিইউ ও সিসিইউ ইউনিট চালু হওয়ায় এ হাসপাতালটিতে বর্তমানে শয্যা সংখ্যা ৫০।

  ওই হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা রেজোয়ান মোল্লা(৭০)। তিনি ফরিদপুর শহরের টেপাখোলা মহল্লার বাসিন্দা মরহুম হাবিবুর রহমানের ছেলে। রেজোয়ান মোল্লা একজন ইট ভাটা ব্যবসায়ী। তিনি বলেন, আমি ইটভাটার ব্যবসা করি। স্বাস্থ্য বিষয়টি বুঝিনা। তবে ৫০ শয্যার এ স্থাপন করেছি আমার ছেলে ডেন্টার চিকিৎসক সৈয়দ মোঃ সালেহর অনুপ্রেরণায়।

  গত ২২শে জুন দুপুরে ওই হাসপাতালের কোভিড-১৯ আইসোলেশন ইউনিটের উদ্বোধন করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। 

  এ সময় অন্যদের মধে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাসুম রেজা ও ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকী উপস্থিত ছিলেন।  

  ডেন্টাল চিকিৎসক সৈয়দ মোঃ সালেহ বলেন, আমাদের ইচ্ছে ছিল এই হাসপাতালটিকে রিং পড়ানোর সুযোগসহ একটি হার্টের হাসপাতাল হিসেবে প্রস্তুত করা। কিন্তু কোভিড পরিস্থিতির অবনতির কারণে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসকের পরামর্শে দুটি আইসিইউ ও ১৪টি সিসিইউ শয্যাসহ কোভিড-১৯ আইসোলেশন ইউনিট চালু করা হয়েছে। 

  তিনি বলেন, বর্তমানে করোনা রোগীদের চিকিৎসা শুধুমাত্র ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দেওয়া হয়। রোগী বাড়তে থাকলে আমরাও সহযোগী হিসেবে ভূমিকা করতে চাই।

  ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, ফরিদপুর সদরের রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতালে  ১৬ শয্যা বিশিষ্ট আইসিইউ ও সিসিইউ ইউনিটসহ  ‘কোভিড-১৯ আইসোলেশন ইউনিট’ চালু হয়েছে এ বিষয়টি আমি শুনেছি। তাবে আমার স্বচক্ষে দেখার সুযোগ হয়নি।

রাজবাড়ীর গোদার বাজারে ৬শ মিটার নদী তীর প্রতিরক্ষার প্রকল্পে ২শ মিটার বিলীন॥কাজের মান নিয়ে প্রশ্ন
গোদার বাজারে পদ্মা নদী ভাঙ্গন রোধের কাজ পরিদর্শনে এমপি কাজী কেরামত আলী
রাজবাড়ীতে নদী ভাঙ্গন ঠেকাতে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে--- এমপি সালমা চৌধুরী রুমা
সর্বশেষ সংবাদ